কলকাতার বুকে যাত্রা শুরু ভারতের প্রথম ট্রাম লাইব্রেরির,থাকছে আরও চমক,দেখে নিন!

নতুন এই উদ্যোগের কথা জানাতে পরিবহন দপ্তর বলেছেন -"কলেজস্ট্রিট বাংলা বইয়ের পিঠস্থান।তার উপর দিয়েই চলবে ট্রাম। 

0
390
Image-Google

Times Of Kolkata Desk- বই পড়ার মধ্য দিয়ে ট্রাম যায় বহু দিন ধরেই। কিন্তু ট্রামে বসেই বই দেখার ও পড়ার সুযোগ এই প্রথম পেতে চলেছেন যাত্রীরা। হ্যাঁ ট্রামে চালু হতে চলেছে এবার লাইব্রেরী। আজ বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্য পরিবহণ নিগমের তরফ থেকে এসপ্ল্যানেড শ্যামবাজার রুটের একটি ট্রামে বুকস অন হুইলস বা চলমান গ্রন্থাগার পরিষেবা শুরু হলো।

এক কামরার সেই ট্রামে ওয়াইফাই এর পরিষেবা পাবেন যাত্রীরা। সেই ট্রামে যাত্রীরা নিজেদের ইচ্ছামত বই ও পত্র-পত্রিকা পড়তে পারবেন।প্রথম সপ্তাহে ওই ট্রামে উঠলে উপহার হিসেবে যাত্রীরা পাবেন একটি কলম।

করোনার আবহে মার্চ মাস থেকেই ট্রাম পরিবহন বন্ধ। অবশেষে আজ থেকে এই পরিষেবা নতুন করে চালু হবে সামাজিক যাবতীয় দূরত্ব বিধি মেনে। নতুন এই উদ্যোগের কথা জানাতে পরিবহন দপ্তর বলেছেন -“কলেজস্ট্রিট বাংলা বইয়ের পিঠস্থান।তার উপর দিয়েই চলবে ট্রাম।

 

এই রুটে অনেকগুলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যুক্ত তার মধ্যে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে বসে আছে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় স্কটিশ চার্চ কলেজ বেথুন কলেজ আছে হিন্দু স্কুল ও হেয়ার স্কুল। পড়ুয়ারা যাতে ট্রাম যাত্রার সময় পড়াশোনা করতে পারে তাই এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এখানে গল্পের বইয়ের পাশাপাশি পাঠ্যপুস্তক পাওয়া যাবে এছাড়া প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার বইও পাওয়া যাবে। তবে অন্যান্য যাত্রীরাও অবশ্য এই পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হবেন না।”

বই পড়ার পাশাপাশি বইয়ের উদ্বোধন অন্যান্য সাহিত্যবিষয়ক কর্মকাণ্ড ও এই ট্রামের মধ্যে আয়োজিত হবে। এত কিছু যে ট্রামে পাওয়া যাবে তার ভাড়া কত হবে তা নিয়ে প্রশ্ন থাকে? সংশয় কাটিয়ে পরিবহন দপ্তর জানান এসি ট্রামের ভাড়ার বিনিময়েই এই সকল পরিষেবা পাওয়া যাবে। তাহলে এখন থেকে ট্রামে বসেও আর বিরক্ত হতে হবেনা, চাইলেই বই পাওয়া যাবে হাতের কাছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here