প্রযুক্তির মাধ্যমে চোখের আলো ফিরে পাবে অন্ধ ব্যক্তি, আশার আলো দেখাচ্ছে বিজ্ঞানীরা…

0
293

অন্ধ ব্যক্তিদের জন্য আশার আলো হয়ে দেখা দিচ্ছে রেটিনাল ইমপ্লিমেন্ট। যদিও এ প্রযুক্তি অনেক ব্যয় বহুল হওয়াতে সাধারণ মানুষের পক্ষে তা ব্যবহার করা সম্ভব হয়ে উঠছে না। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে শত শত মানুষ তাদের চোখের আলো ফিরে পাওয়ার চেষ্টা করছেন। ব্রেইন ইমপ্লান্ট বাস্তবায়নের জন্য আগ্রুস-২ বায়োনিক চোখ সেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

ন্যানো প্রিসিসন মেডিকেলের প্রধান নির্বাহী অ্যাডাম ম্যান্ডেলসন বলেন, আমাদের লক্ষ্য নিউরো স্টিমুলেশন প্রযুক্তির উন্নয়ন করা, যার মাধ্যমে অন্ধ ব্যক্তি তার চোখের আলো ফিরে পাবে।

আইইইই স্কেপট্রাম এর রিপোর্ট বলছে, সেকেন্ড সাইট প্রক্রিয়াটি বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। যদিও দৃষ্টিশক্তিহীন ব্যক্তিদের দৃষ্টি ফেরানোর লক্ষ্যে ২০১৯ সালে আর্টিফিসিয়াল ভিশন নিয়ে যাত্রা শুরু করে।

ফার্মটির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে ২০২০ সালে সেকেন্ড সাইট প্রক্রিয়াটি ২০২০ সালের দিকে ব্যবসায়ীক কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে। তারা এখন ব্রেইন ডিভাইসের ওপর মনোনিবেশ করছে। যেটি কিনা আর্টিফিশিয়াল ভিশন পূরণ করবে।

তবে বিজ্ঞানীরা যে পদ্ধতিতে চোখের দৃষ্টিশক্তি ফেরানোর প্রক্রিয়া চলতে তা খুবই ব্যয়বহুল। কারণ এ প্রযুক্তি ব্যবহারের জন্য প্রশিক্ষণের প্রয়োজন রয়েছে। এর জন্য প্রায় ১ লাখ ৫০ হাজার ডলার খরচ হবে। যা অনেকের পক্ষে ব্যয় করে এ সুবিধা গ্রহণ করা সম্ভব নয়।

মূলত গ্লানের উপর ক্যামের সংযুক্ত করা হবে এবং একটি ভিডিও প্রসেসিং ইউনিট (ভিপিইউ) থাকবে। ক্যামেরা সার্বিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে ভিপিআই এর কাছে একটি ভিডিও পাঠাবে। যেটি কনভার্ট করে ছবি আকারে সাদাকালো কিংবা রঙিন আকারে ব্যবহারকারীর গ্লাসে সতর্ক পাঠাবে। আর এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে অন্ধ ব্যক্তি সঠিক পথ নির্ণয় করতে সক্ষম হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here