সোমবার থেক রাজ্যের এইসমস্ত জায়গায় বন্ধ থাকবে ইন্টারনেট পরিষেবা, দেখে নিন…

0
5565

‘দুষ্টুমি’ করে প্রশ্নপত্র ফাঁস করে দিতে পারে পরীক্ষার্থীরা। ‘কড়া’ রাজ্য তাই ঠিক করেছে পরীক্ষাচলাকালীন ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হবে কিছু কিছু এলাকায়। মাধ্যমিক পরীক্ষায় নকল রুখতে রাজ্যের একাধিক এলাকায় পরীক্ষা চলাকালীন ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ থাকবে বলে জানাল শিক্ষা দফতর।

জানা গিয়েছে, পরীক্ষা শুরুর আগে থেকেই স্পর্শকাতর এলাকায় বন্ধ থাকবে ইন্টারনেট (Internet) পরিষেবা। সেইসঙ্গে পরীক্ষার্থীদের কোভিড বিধি মেনে পরীক্ষা দিতে হবে। প্রত্যেক পরীক্ষার্থীকে পরে থাকতে হবে মাস্ক (Mask)। পরীক্ষাকেন্দ্রে বসার ক্ষেত্রেও থাকবে শারীরিক দূরত্ব।

এবছর মাধ্যমিকে এক লাফে ৫০ হাজার বেড়েছে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা। রাজ্যে এবার মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী প্রায় ১১.২৭ লক্ষ। তার মধ্যে ৬.২৭ লক্ষ ছাত্রী ও ৫.৫৯ লক্ষ ছাত্র।পরীক্ষা হবে বেলা ১১.৪৫ মিনিট থেকে, চলবে ৩ টে পর্যন্ত। ৭, ৮,৯, ১১, ১২, ১৪, ১৫ ও ১৬ মার্চ নেট পরিষেবা বন্ধ থাকবে।পরীক্ষার আগে বা পরীক্ষা চলাকালীন যাতে প্রশ্নপত্র কোনও ভাবেই হলের বাইরে না যায় তা নিশ্চিত করতে বিশেষ ভাবে চিহ্নিত এলাকায় ইন্টারনেট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জেলা ভিত্তিক বিভিন্ন ব্লকে নেট পরিষেবা বন্ধ থাকবে।

স্পর্শকাতর জেলা হিসাবে দুই 24 পরগনা ,বীরভূম, মালদা, মুর্শিদাবাদ জেলার নাম উঠে এসেছে । ফলে স্বাভাবিক ভাবেই ঐ জেলার প্রায় অনেক স্থানে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ থাকবে। । পরীক্ষা শুরুর ১ ঘণ্টা ১৫ মিনিট পর্যন্ত পরীক্ষার ঘরের বাইরে পরীক্ষার্থীরা বেরোতে পারবেন না। তার পরেও শৌচাগারে যেতে হলে ঘরের দায়িত্বে থাকা পরীক্ষকের কাছে প্রশ্নপত্র ও উত্তরপত্র জমা রেখে যেতে হবে এবং যত দ্রুত সম্ভব ফিরে আসতে হবে। কোনও পড়ুয়া পরীক্ষা শুরুর ন্যূনতম ১ ঘণ্টা ১৫ মিনিট পরেই খাতা জমা দিতে পারবে। তবে সে ক্ষেত্রে তাকে প্রশ্নপত্রও জমা দিতে হবে। পরীক্ষা শেষের পরে সে এসে প্রশ্নপত্রটি সংগ্রহ করতে পারবে। পরীক্ষা চলাকালীন প্রশ্ন ফাঁস রুখতেই এই পদক্ষেপ বলে জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here