জনপ্রিয় বাঙালি পদ রান্না করে Youtube স্টার বীরভূমের ৮২ বছরের বৃদ্ধা! চিনেও পৌঁছে গেছে তার রেসিপি!

0
3716
Villfood

বয়স তাকে হার মানাতে পারেনি, তিনিই বয়সকে হার মানিয়েছেন। পাশাপাশি ঘুচিয়েছেন পরিবারের দারিদ্র্য। বলা হচ্ছে ৮২ বছর বয়সি এক নারীর কথা। তিনি এই বয়সেই জনপ্রিয় ইউটিউবার হিসেবে খ্যাতি পেয়েছেন। বিশ্বজুড়ে লাখ লাখ মানুষ তাকে ফলো করছেন……।

বীরভূমের ইলামবাজারে বনভিলার বাসিন্দা, সাদা শাড়ির এই ছাপোষা নারীই মন জয় করে ফেলেছেন নেটিজেনদের। বর্তমানে ইউটিউবে তার ফলোয়ারের সংখ্যা প্রায় ১১ লাখ। এখন ইউটিউব থেকে কনটেন্ট ক্রিয়েটর (content creator) হিসেবে আয় করেন অনেকেই। জানা যাচ্ছে এই চ্যানেল থেকে পুস্পরানি বছরে প্রায় ৮ থেকে ১০ লক্ষ টাকা রোজগার করেন। ২০২০ সালে ইউটিউব কতৃপক্ষ এই চ্যানেলটি গোল্ডেন প্লে বাটন সম্মানে সম্মানিত করেছে। এই চ্যানেল থেকে বছরে ৮-১০ লাখ টাকা আয় করে এই পরিবার।

Villfood

ধা চকচকে রান্না ঘর নেই। নেই অত্যাধুনিক সব ইলেকর্তনিক্স গেজেট। ধোপদুরস্ত পরিবেশনের তো কোনো বালাই-ই নেই। আছে কেবল মাটির সোঁদা গন্ধ। বাড়িতেই আছে সবজি বাগান। আর আছে শিলে পাটা মসলার ঘ্রান মেশালো লালিত্য। শুধু এটুকু দিয়েই রান্নার রেসিপি দেখিয়ে বাজিমাত করলেন   ৮২ বছরের বৃদ্ধা।

Villfood

 

যারা রান্নার ভিডিও দেখতে পছন্দ করেন, বিশেষ করে বাঙালি রান্নার, তাদের কাছে পুষ্পরানি সরকারের ইউটিউব চ্যানেল খুবই জনপ্রিয়। চ্যানেলের ‘মাস্টার শেফ’ ৮২ বছরের এক বৃদ্ধা। তার করা রান্নার জনপ্রিয়তা শুধু ভারতে নয়, গোটা বিশ্বে। এমনকি, চীনের মানুষও ফলো করে ‘ভিলফুড’ ইউটিউব চ্যানেলটি। নিজের মুখরোচক স্বাদের রান্নায় তিনি পেয়ে গেছেন ইউটিউব তারকার তকমা।

Villfood

২০১৭ সালে পুষ্পরানির নাতি সুদীপ সরকার খুলেছিলেন এই ইউটিউব চ্যানেল। আর প্রথম যে ভিডিও পোস্ট করা হয়েছিল, তাতে রান্না করা হয়েছিল কুমড়ো ফুলের বড়া। খড়ের ছাউনি দিয়ে ঘেরা রান্নাঘরে, শীল-নোড়ায় পেষা মসলা আর বাগানের সবজি, নিজের পুকুরের মাছ দিয়ে রান্না করেন তিনি। পুষ্পরানিকে সাহায্য করেন তার বউমাও।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here