ভারতের ক্ষমতা রয়েছে গোটা বিশ্বের জন্য করোনার ভ্যাকসিন প্রস্তুত করার, আশাবাদী বিল গেটস

0
820
Image-Google

চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনা নামক মারণ ভাইরাসের প্রকোপে মুখ থুবড়ে পড়েছে গোটা বিশ্ব। পৃথিবীর সমস্ত দেশেই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণের হার। সাধারণ মানুষ প্রতিনিয়ত বাঁচার লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। সমস্ত দেশের বিজ্ঞানীরা আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ভ্যাকসিন আবিষ্কারের জন্য। কিন্তু করোনা কে বশ করার কোন মন্ত্র এখনো পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।


এরই মধ্যে প্রাক্তন মাইক্রোসফট কর্তা বিল গেটস ভারতীয় গবেষকদের পাশে দাঁড়িয়ে একটি বার্তা দিলেন। তিনি জানিয়েছেন,’ ভারতের ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থা গুলোর ক্ষমতা রয়েছে গোটা বিশ্বের জন্য ভ্যাকসিন প্রস্তুত করার ‘।প্রসঙ্গত গত মে মাসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে এই বিষয়ে কথা বলেছিলেন তিনি।

তিনি সেখানে জানিয়েছিলেন করোনার মোকাবিলায় ভারতের ভূমিকা সত্যিই প্রশংসনীয়। লকডাউন এর সঠিক বিধিনিষেধ মেনে চলা থেকে শুরু করে বিজ্ঞানীদের ভ্যাকসিন গবেষণা সব ক্ষেত্রেই ভারত অনেকটাই এগিয়ে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে খুব ভালো কাজ করেছে তারা ‘।

কোভিড মোকাবিলায় ভারতের ভূমিকা নিয়ে তৈরি,’Covid 19: India’s war against the virus ‘ ডকুমেন্টারিতে বিল গেটস বলেছেন ” এই মহামারীর মোকাবিলা করাটা ভারতের কাছে একটি অত্যন্ত বড় চ্যালেঞ্জ ছিল। বিপুল জনসংখ্যা সম্পন্ন ভারতের পক্ষে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া আটকানোটা মোটেই কোনো সহজ কাজ ছিল না। কিন্তু ভারত সেই কাজ অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গেই করেছে এবং এখনও করার আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে “।

বিল গেটস আরো জানিয়েছেন, ভ্যাকসিন তৈরীর ক্ষেত্রে খুব ভালো কাজ করেছে ফার্মাসিউটিক্যাল ও বায়োটেকনোলজি সংস্থাগুলি। তিনি দাবি করেছেন ভারতে যে পরিমাণে ভ্যাকসিন ও ওষুধ প্রস্তুত হয় বিশ্বের আর কোন দেশের পক্ষে তা করা সম্ভব নয়।

গেটস জানিয়েছেন,” আমি সত্যিই অভিভূত এই কঠিন সময়ে ভারত শুধু নিজের কথাই ভাবছে তা নয় তারা সমস্ত বিশ্বেই ভ্যাকসিন পৌঁছে দেওয়ার পরিকল্পনা করছে। এইভাবে ন্যায় ও সংহতির সঙ্গে কাজ করলেই এই মহামারীকে রোধ করা সম্ভব “।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here