কলকাতার বুকে বিরাজ করছেন ১৫১ ফুট উচ্চতার হনুমানজি! পুরন করেন সকলের মনস্কামনা…

0
1186
kolkata hanumaan mandir

হনুমান জি কে বলা হয় সংকটমোচন তিনি সংকট দূর করেন। একমনে তাকে ডাকলে যাবতীয় সংকট যেমন কেটে যায় তেমনি একইসাথে জন্ম কুষ্টিতে থাকা শনি গ্রহরাজের দোষ ও কেটে যায়। আবার বলা হয় হনুমানের নাম যিনি স্মরণ করবেন ভুত-প্রেত তার কোন ক্ষতি করতে পারবেনা। মঙ্গলবার করে হনুমান জীর পুজো করা হলে এবং প্রসাদ হিসেবে লাড্ডু নিবেদন করলে হনুমানজির কৃপা পাওয়া যায়। দেশেবিদেশে হনুমানজির অনেক মন্দির আছে। কিন্তু কলকাতার বুকে হনুমানজির বিশাল আকারের মূর্তি কি আগে কখনো দেখেছেন?

ইকোপার্ক চার নম্বর গেট থেকে পাঁচ মিনিটের দূরত্বে আছে হনুমানজির বিশালাকার এক হনুমান মন্দির। ১৯৮২ সালের মাঝামাঝি সময় করে এই মন্দিরটি স্থাপিত হয়েছিল। এই মন্দিরটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন পন্ডিত সুরেশ কুমার সাহাল। বর্তমানে সুরেশ বাবুই এই মন্দিরের দেখাশোনা করেন। সুরেশ বাবুর ছেলে বিবেক সাহাল দর্শনার্থীদের মাঝে মাঝে মন্দির পরিদর্শন করান এবং মন্দির সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য দেন।

এই মন্দিরে প্রবেশ করলেই দেখতে পাবেন একটি বিশাল আকার হনুমানজীর মূর্তি। মন্দিরে ঢুকলেই সবার আগে এই মন্দিরের বিগ্রহ চোখে পড়ে। দীর্ঘ উচ্চতাবিশিষ্ট হনুমান মূর্তিই এই মন্দিরের প্রধান আকর্ষণ। এই মন্দিরের বিগ্রহের উচ্চতা ১৫১ ফুট। এই মূর্তির পাশেই আবার নির্মিত হচ্ছে বিশাল আকারের বাসুকিনাথ দেবের মূর্তি। সবমিলিয়ে রাজধানী কলকাতার বুকে গড়ে ওঠা বিশাল আকার হনুমানজির এই মূর্তি হনুমান ভক্তদের কাছে একটা বড় পাওনা। প্রতি সপ্তাহের মঙ্গলবার করে এখানে ভীষণ ভিড় হয় এছাড়া সপ্তাহের অন্যান্য দিন‌ও ভক্তরা এখানে আসেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here