মুকেশ আম্বানির ড্রাইভারের বেতন কতো জানেন?লজ্জায় পরে যাবে দেশের বড় কর্পোরেট সংস্থার কর্মীরাও!!

0
460
image-GOogle

বর্তমানে বিশ্বের দরবারে ভারতের নাম করলেই চলে আসে রিলায়েন্স জিও (Jio) -র কথা, আর স্বাভাবিকভাবেই তার সঙ্গেই উচ্চারিত হয় রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড-এর কর্নধার মুকেশ আম্বানি (Mukesh Ambani)-এর নাম। বিশ্বের প্রথম সারির
ধনকুবের দের মধ্যে অন্যতম মুকেশ আম্বানি।

গত এক দশকে সম্পদের নিরিখে কেউ টপকে যেতে পারেননি। যত দিন যাচ্ছে উত্তরোত্তর তার সম্পদের পরিমাণ বৃদ্ধি পাচ্ছে।তাকে টেক্কা দেওয়ার মতো বিত্তবান ভারতে কেউ নেই। প্রত্যেকেই শতযোজন পিছিয়ে রয়েছেন। মুকেশ আম্বানির গাড়ির চালক কত রোজগার করেন তা জানলে অনেকের চোখ কপালে উঠতে পারে। তার যা রোজগার তাতে তিনি লজ্জায় ফেলে দিতে পারেন বড় বড় আন্তর্জাতিক কর্পোরেট সংস্থার কর্মীদেরও।

মুকেশ আম্বানির বাড়িতে দামি গাড়ির কোনো কমতি নেই। পৃথিবীর সমস্ত কোম্পানির বিলাসবহুল গাড়ি তার বাড়িতে দেখা যায়। কিন্তু এই গাড়ি তাকে নিয়ে গেছে এক অনন্য উচ্চতায় আজকের প্রতিবেদনে আমরা সেই নিয়েই আলোচনা করব। মুকেশ আম্বানির সংগ্রহে এসেছে নতুন এক গাড়ি। এই গাড়ির বর্তমান এক্স শোরুম মূল্য ৮.৭ কোটি টাকা। গাড়িটি বিএমডব্লিউ ৭ সিরিজের একটি গাড়ি।

Image-Google

গাড়িটি ৬.২ সেকেন্ডে ঘন্টায় ১০০কিলোমিটার গতিবেগে ছোটার শক্তি সম্পন্ন। এর গাড়ির ঘন্টায় সর্বোচ্চ ২১০ কিলোমিটার গতিবেগে ছুটতে পারে। এই গাড়িটিতে ব্যবহার করা বিশেষ প্রযুক্তি দিয়ে খুব সহজেই স্যাটেলাইট দ্বারা গাড়িটি ট্র্যাক করা যাবে।

এহেন গাড়ি চালানোর জন্য ড্রাইভারও যে সেই মাপেরই হতে হবে তা নিশ্চিত আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। ইন্টারভিউ দিয়ে যোগ্যতা যাচাই করেই ড্রাইভার পদে নিয়োগ হয় আম্বানি পরিবারে। তবে তার বেতন শুনলে আপনি তাজ্জব বনে যেতে পারেন। মুকেশ আম্বানির গাড়ির চালক মাসে ২ লক্ষ টাকা বেতন পায়।

চালকের প্রয়োজন হলে বেসরকারি সংস্থাকে চালক খোঁজার দায়িত্ব দেওয়া হয়। সেই সংস্থা লোক খুঁজে তাঁকে ট্রেনিং দিয়ে তারপরে পাঠায়। শুধু ট্রেনিং করলেই যে ড্রাইভারের চাকরি মিলবে এমনটা নয়। ট্রেনিংয়ের পরে হাজারো টেস্ট দিতে হয়। সেগুলিতে পাশ করলে তবেই চাকরি পাকা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here