বাড়ল পূর্ব ভারতের বায়ুশক্তি! উত্তরবঙ্গের হাসিমারায় পৌঁছল তিনটি রাফাল…

চিনের সঙ্গে লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনার পর থেকে হাসিমারা বিমানঘাঁটির গুরুত্ব আরও বেড়েছে৷ কারণ সিকিম, অরুণাচল প্রদেশের মতো রাজ্যগুলির সঙ্গে চিনের সীমানা রয়েছে৷ ফলে কোনও ধরনের উত্তেজনা তৈরি হলে প্রয়োজনে হাসিমারা থেকে দ্রুত চিন সীমান্তে পৌঁছে যেতে পারবে রাফাল৷

0
813
Hasimara Rafale

দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান। অবশেষে হাসিমারায় এসে পৌঁছল রাফাল যুদ্ধবিমান। এদিন ভারতীয় বায়ুসেনার প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল আরকেএস ভাদৌরিয়ার পৌরহিত্যে পুনর্গঠিত ১০১ স্কোয়াড্রনে সরকারিভাবে রাফাল যুদ্ধবিমানকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। উপস্থিত ছিলেন বায়ুসেনার পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ডার এওসি-ইন-সি এয়ার মার্শাল অমিত দেব।এখনও পর্যন্ত মোট ২৬টি রাফাল ভারতে পৌঁছেছে৷ ফ্রান্সের থেকে মোট ৩৬টি রাফাল যুদ্ধ বিমান পাওয়ার কথা ভারতের৷

এদিন বিমান অবতরণ করলে তাকে জলকামান দিয়ে প্রথামাফিক অভ্যর্থনা জানানো হয়। এর আগে, তিনটি রাফাল যুদ্ধবিমান মাঝ-আকাশে ফ্লাই-বাইয়ের মাধ্যমে তাদের আগমনের জানান দেয়।

এদিনের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বায়ুসেনা প্রধান বলেন, হাসিমারায় ভীষণ ভাবনাচিন্তা করেই রাফাল বিমানকে হাসিমারায় মোতায়েন করা হচ্ছে। এর ফলে, পূর্বাঞ্চলে বায়ুসেনার শক্তি অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে।

ওই যুদ্ধবিমানগুলিকে রাখা হয়েছে উত্তরবঙ্গের হাসিমারায়। যা ভারতের ভৌগলিক অবস্থানের ক্ষেত্রে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ওই আলিপুরদুয়ারের ওই এলাকা থেকে অদূরেই রয়েছে দুই পড়শি রাষ্ট্রের সীমা।   এই রাফাল আসার পর পূর্ব ভারতও যে বায়ুশক্তিতে অনেকটা উন্নত হলো, একথা বলার অপেক্ষা রাখেনা…

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here